1. admin@amardeshpbd.com : amardesh :
  2. sumarubelp@gmail.com : suma :
মেঘনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ একজনের মরদেহ উদ্ধার - আমার দেশ প্রতিদিন
November 29, 2022, 10:20 am
ব্রেকিং নিউজ:

মেঘনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ একজনের মরদেহ উদ্ধার

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, অক্টোবর ২৯, ২০২২,
  • 27 Time View

মোঃ মেজবাহ উদ্দিন ভূইয়া

নরসিংদীর আলোকবালী ইউনিয়নের চর আফজালে পিকনিকে এসে মাদ্রাসার দুই ছাত্র নিখোঁজ হওয়ার ২০ ঘন্টা পর হাফেজ মো. গালিব (১৫) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) দুপুর ১ টার দিকে নরসিংদীর আলোকবালী ইউনিয়নের বশখালী এলাকার মেঘনা নদী থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে এখনো পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছে
হাফেজ সহিদুল ইসলাম মাফফুজ (১৭) নামের আরেক মাদ্রাসা ছাত্র। পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়,বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৫ টার দিকে ফুটবল খেলা শেষে অন্যান্যদের সাথে মেঘনা নদীতে গোসল করতে নামার পর পানিতে ডুবে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। খবর পাওয়া মাত্র তাদের লাশ উদ্ধারে নরসিংদীর নৌ পুলিশ ও ফায়ার
সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কাজ করে।এরপর প্রায় ২০ ঘন্টা উদ্ধার অভিযান চালিয়ে হাফেজ মো. গালিবের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ দিকে ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর পরিবারে চলছে শোকের মাতম। নিখোঁজ ছাত্ররা হলেন, পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল পৌর এলাকার দড়িপাড়া গ্রামের পত্রিকার এজেন্ট আজিজুল হকের ছেলে মো. গালিব মিয়া এবং রায়পুরা উপজেলার বড়ইতলা গ্রামের হারুন মিয়ার ছেলে সহিদুল ইসলাম মাফফুজ। তারা উভয়েই সদর উপজেলা ঘোড়াদিয়া মুহম্মদীয়া ইন্টারন্যাশনাল তাহফুজুল কুরআন মাদ্রাসার শিক্ষার্থী এবং উভয়ে কুরআনে হাফেজ। জানা যায়, মাদ্রাসার বার্ষিক পিকনিকের অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে ওই মাদ্রাসা থেকে শিক্ষকসহ ৩২ জন আলোকবালী ইউনিয়নের চর আফজালে যায়। বিকালে ফুটবল খেলা শেষে ৫ টার দিকে মেঘনা নদীতে গোসল করতে নামলে শিক্ষকসহ বাকি ৩০ জনকে খুঁজে পাওয়া গেলেও অনেক খোজাখুঁজির পর ভুক্তভোগীদের আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। পরে পুলিশকে বিষয়টি জানানো হলে সদরের করিমপুর নৌ পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। অনেক খুঁজাখুঁজি করে তাদের না পেয়ে ও ডুবুবি দল না থাকায় গতরাত ৯ টায় উদ্ধার অভিযান শেষ করেন। শুক্রবার সকাল থেকে
ডুবুরিদল এনে পুনরায় উদ্ধার অভিযান চালিয়ে দুপুর ১ টার দিকে একজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। করিমপুর নৌ পুলিশের ইনচার্জ ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। নরসিংদীর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরি না থাকায় এবং গভীর রাত হয়ে যাওয়ায় গত কালের (বৃহস্পতিবার) উদ্ধার কাজ শেষ করেছি। পরে শুক্রবার সকালেই ঢাকা থেকে ডুবুরিদল আসার পর আবারও উদ্ধার কাজ শুরু করা হলে হাফেজ মো. গালিবের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এখনো উদ্ধার কাজ চলছে। এদিকে পলাশ উপজেলার পত্রিকার এজেন্ট মো. আজিজুল হকের ছেলে হাফেজ মো. গালিবের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে নিহতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন পলাশ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এসএম শফি, সাধারণ সম্পাদক আশাদউল্লাহ মনা ও উপজেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি নূরে-আলম রনি এবং সাধারণ সম্পাদক আল-আমিন মিয়াসহ পুরো সাংবাদিক সমাজ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Copyright © All Right Reserved 2020 আমার দেশ প্রতিদিন
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )