1. admin@amardeshpbd.com : amardesh :
  2. sumarubelp@gmail.com : suma :
পাবনায় ইটভাটা এখন বিনোদনের রানা ইকো পার্ক - আমার দেশ প্রতিদিন
November 27, 2022, 1:16 am

পাবনায় ইটভাটা এখন বিনোদনের রানা ইকো পার্ক

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২০,
  • 300 Time View

 

পাবনায় ইটভাটা এখন বিনোদনের রানা ইকো পার্

রাসেল মাহমুদ, পাবনায় সদর উপজেলার বলরদমপুরে দুটি ইটভাটা ভেঙ্গে স্থাপন করা হয়েছে বিনোদনের রানা ইকো পার্ক।
পাবনা জেলা শহর থেকে মাত্র পাঁচ-ছয় কিলোমিটার দূরে, পাবনা জেলার প্রথম বিনোদন পার্ক হিসেবে যাত্রা শুরু করেছে ১০০ বিঘা জমির উপর স্থাপিত এই পার্কটি।
এই অঞ্চলটিতে দূষণের কারণ হিসেবে ব্যবহৃত জমির বিশাল অংশটি এখন সবুজ ছিটমহলে পরিণত হয়েছে।
নয়নাভিরাম সবুজ ঘাসে আবৃত এবং শত শত নতুন রোপিত গাছের চারা দ্বারা আবদ্ধ পার্কটি।
পাবনা শহরের পাশাপাশি আশেপাশের অঞ্চল থেকে প্রচুর দর্শনার্থীরা তাদের ছোট্ট সোনা-মনিদের নিয়ে এই মনোমুগ্ধকর পার্কে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।
পার্কটিতে ছোটদের আকর্ষণের জন্য রাখা হয়েছে, বিভিন্ন পাখি এবং প্রাণীর জীবন আকারের ভাস্কর্যগুলো-ল্যান্ডস্কেপ। রয়েল বেঙ্গল টাইগার বা জিরাফ- ভাস্কর্য। রাখা হয়েছে যান্ত্রিক রাইড । পার্কে ফেরিস হুইল, মেরি-গো-রাউন্ড, ড্রাগন পেন্ডুলাম, মিনিয়েটার ট্রেন, ওয়াটার রাইড এবং প্যাডেল বোট রাইড এখন কয়েটি প্রধান আকর্ষণ রয়েছে।
দ্বিতীয় ভাটাটি ভেঙে ফেলার পরে আরও রাইডস ও একটি ওয়াটার পার্ক স্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন ‘রানা ইকো পার্ক ও পিকনিক স্পটে’র মালিক রুহুল আমিন বিশ্বাস রানা।
পার্কে ঘুড়তে আসা আট বছরের শিশু আফ্রিনা বলে, সে তার মা-বাবার সাথে পার্কে এসে। পার্কে থাকা সমস্ত রাইড তাঁর পছন্দ। আনন্দময়-গোল রাউন্ডটি তার পছন্দ হয়েছে সব চেয়ে বেশি।
স্কুল শিক্ষিকা মুসলিমা খাতুন জানান, তিনি হ্রদে প্যাডেল বোট যাত্রা পছন্দ করেছেন সবুজ ল্যান্ডস্কেপের চারদিকে।
প্রতিনিধির সাথে কথা বলার সময় পার্কের মালিক রানা বলেন, তিনি সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতার বোধ থেকে নিজের ইটভাটাগুলো সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এবং পাবনা জেলায় পার্ক তথা শিশুদের বিনোদন স্থান না থাকায় তিনি ইটভাটাগুলো ভেঙে সেখানে পার্কটি তৈরি করতে শুরু করেছেন।in

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Copyright © All Right Reserved 2020 আমার দেশ প্রতিদিন
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )