1. admin@amardeshpbd.com : amardesh :
  2. sumarubelp@gmail.com : suma :
ধুনটে অবৈধ বালু বহনকারী ঘাতক ট্রাক্টরের ধাক্কায় ঝাড়ুদার নিহত জীবনের মূল্য ৫০ হাজার টাকা মাত্র - আমার দেশ প্রতিদিন
December 5, 2022, 3:25 pm
ব্রেকিং নিউজ:
রাবেয়া ক্লিনিকে রোগীকে ভুল অপারেশন করায় ডুমুরিয়া থানায় অভিযোগ, ভুক্তভোগীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে ডাক্তার হাসান লালমনিরহাটে বন্ধ রাস্তা চালুর দাবীতে গ্রামবাসীদের মানববন্ধন আজ নাটোরে পালিত হলো বিশ্ব মৃত্তিকা দিবস ডুমুরিয়ায় শিশু কন্যাকে যৌন হয়রানির অভিযোগে মন্টু মোল্যাকে আটক করেছে থানা পুলিশ ডুমুরিয়ার চুকনগরে এক সপ্তাহের ব্যাবধানে ৫টি দুঃসাহসিক চুরি সংঘটিত হয়েছে ফলে চুরি নিয়ে শঙ্কিত রয়েছে সাধারণ মানুষ গাবতলী নেপালতলী ইউপি চেয়ারম্যান বাবুর বিরুদ্ধে অনিয়ম-দূর্নীতির অভিযোগ বগুড়ায় জেলা যুবলীগের উদ্যোগে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল চুনারুঘাটে ৪ কোটি ৩২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ২ টি ব্রিজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন বিমান প্রতিমন্ত্রী-এড.মাহবুব আলী সাংবাদিক ফারুক হোসেনর মৃত্যুতে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব লালমনিরহাটের গভীর শোক প্রকাশ পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে কাপ্তাই সেনা জোনের উদ্যোগে গরিব ও দুস্থ্যদের মাঝে চিকিৎসা সেবা প্রদান

ধুনটে অবৈধ বালু বহনকারী ঘাতক ট্রাক্টরের ধাক্কায় ঝাড়ুদার নিহত জীবনের মূল্য ৫০ হাজার টাকা মাত্র

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, আগস্ট ১৪, ২০২২,
  • 56 Time View

বিশেষ প্রতিনিধি ঃ

অবৈধ বালু বহনকারী ট্রাক্টরের ধাক্কায় হাট ঝাড়ুদারের মৃত্যু। গরীব অসহায় হাট ঝাড়ুদারের জীবনের মূল্য ৫০ হাজার টাকা।
বগুড়া ধুনটে বালু বোঝাই ট্রাক্টরের ধাক্কায় রবিন দাস হুগলু (৫৬) নামে এক ব‍্যাক্তি নিহত হয়েছেন। গত (৯ আগস্ট ) মঙ্গলবার উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নে বিলচাপড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় ঐ দিনই ধুনট থানায় একটি অভিযোগ করেন নিহতের পরিবার এবং ঘাতক ট্রাক্টরটিকে জব্দ করে নিয়ে আসে ধুনট থানা পুলিশ। ট্রাক্টরটি দুইদিন জব্দ থাকার পর অদৃশ্য ক্ষমতায় ছাড়াও পেয়েছে।
নিহত রবিন দাস (হুগলু) বিলচাপড়ি হিন্দু পাড়ার মৃত খোকা দাসের ছেলে এবং পেশায় বিলচাপড়ি খালপাড় ইজারাকৃত হাটের ঝাড়ুদার ছিলেন।
তথ‍্যসুত্রে জানাগেছে, ঐ দিন ছিল হাটবার, রবিন দাস অন‍্য হাট বারের মত সেদিনও হাট পরিচ্ছন্নতার কাজ করছিলেন ।
এমতাবস্থায় বালু বহনকারী ট্রাক্টরটি তাকে সজোড়ে ধাক্কা মারলে মারাত্মক জখমসহ গুরুতর আহত হয়।
উপস্থিত লোকজন ও নিহতের পরিবার তাৎক্ষণিক তাকে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে দায়িত্বে থাকা ডাক্তার অবস্থা বেগতিক দেখে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে (শজিমেক) পাঠিয়ে দেয়। সেখানে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ইসিজি করার পর তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
অনুসন্ধানে জানা গেছে, এর পরেই গরীব অসহায় পরিবারটিকে বিচার বঞ্চিত করতে শুরু হয় চক্রান্ত। কারণ ঘাতক ট্রাক্টরটি ছিল এলাকার চিহ্নিত দুষ্কৃতিকারী ও প্রভাবশালীর। নিহতের নিকটতমরা এই প্রতিনিধিকে জানান, আমরা অনেক রকমের চেষ্টা করেও মেডিকেল থেকে মৃতদেহটি নিতে ব‍্যর্থ হই। এর এক পর্যায়ে দেখামেলে
বিলচাপড়ি বালুর মহলের এর মালিক মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে উৎসব (৪৮) ও তার দুই সহযোগী মৃত আনছারের ছেলে আলম ( ৫২) এবং আজিজুর রহমানের ছেলে লিখন (২৬) সঙ্গে। তারা আমাদের জিম্মি করে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে বলে তাদের কথা মতো না চললে মৃতদেহটি আমরা পাবোনা।
নিরুপায় আমরা বিভিন্ন ভাবে আমাদের আত্বীয় স্বজনদের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হ‌ই।
অবশেষে গভীর রাতে আমাদেরকে সিএনজিতে করে ধুনট থানায় নিয়ে আসা হয়।
থানায় এসে দেখতে পাই, সেখানে আমাদের ওয়ার্ড মেম্বার আ: মোমিন কালের পাড়া ইউপি চেয়ারম্যানের ভাই শিহাবুল উপস্থিত আছে।
তারা সবাই আমাদের বড় স্যারের ঘরে নিয়ে মেডিকেল থেকে মৃতদেহ নেওয়ার কথা বলে জোর করে সাদা কাগজে টিপসহি নেয় । এ সময় উৎসব ও শিহাবুল ভয়ভীতি দেখিয়ে বলে বাবা মারা গেছে সে তো আর ফিরে আসবে না। ৫০ হাজার টাকা দিচ্ছি বাবার সৎকার করো।
আর যদি সাংবাদিক বা অন্য কেউ এ ব‍্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে আমাদের কাছে পাঠিয়ে দিবে।
উল্টা পাল্টা কিছু বললে কি হবে সেটা বুঝতে পারছো।
এরপরে ৫০ হাজার টাকা নিহতের শ‍্যালক রতনের হাতে বুঝে দেওয়ার পর ফিরিয়ে নিয়ে ওয়ার্ড মেম্বার আ: মোমিন তার কাছে রেখে দেয়। এরপর হাসপাতাল থেকে মৃতদেহটি আনতে পারে বলে জানান তারা।
কে এই প্রভাবশালী উৎসব, জানাগেছে বিভিন্ন রকমের মামলার আসামী এই উৎসব। এলাকায় তার আধিপত্য বিস্তারে রয়েছে সব ধরনের বাহিনী। এলাকায় তার অনুসন্ধানে কারা আসছে কিভাবে আসছে জানার জন‍্য এলাকা জুড়ে সিসিটিভির মাধ্যমে গড়ে তুলেছে নিরাপত্তা বেষ্টনী।
তার কৃতকর্মে এলাকাবাসী সব সময় থাকে আতঙ্কিত। অতিষ্ঠ ও ভয়ে তটস্থ থাকায় মুখ খোলার সাহস পায়না কেহই।
এলাকার গুটিকয়েক প্রভাবশালী ব্যক্তি ও কিছু অসাধু পুলিশ কর্মকর্তা এবং তার গড়ে তোলা বাহিনীর সহযোগিতায় নির্বিঘ্নে চালিয়ে যাচ্ছে তার স্বেচ্ছাচারিতা। তার এরকমই স্বেচ্ছাচারিতার অংশবিশেষ অবৈধ ঐ বালু মহল। যে বালু মহলের বালু বহনকারী ঘাতক ট্রাক্টর কেড়ে নিল অসহায় গরীব হাট ঝাড়ুদার রবিন দাস হুগলুর প্রাণ।
এ ব‍্যাপারে ওয়ার্ড জনপ্রতিনিধি আব্দুল মোমিনের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন,
আমার কাজ একটা সুষ্ঠু সমাধান করা,
আমি সেটাই করেছি।
হত্যা মামলার কোনো সুষ্ঠু সমাধান আপনি করতে পারেন কি? এই প্রশ্নের কোনো সদুত্তর দেননি তিনি।
ভুক্তভোগীর টাকা আপনার কাছে কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, টাকাটা যেন তারা অপচয় না করে সেই জন্য আমার কাছে গচ্ছিত রেখেছি।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে ধুনট থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেন, এ ঘটনায় থানায় কোনো অভিযোগ হয়নি,
তবে শুনেছি তারা পারিবারিক ভাবে নিষ্পত্তি করে নিয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Copyright © All Right Reserved 2020 আমার দেশ প্রতিদিন
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )