1. admin@amardeshpbd.com : amardesh :
  2. sumarubelp@gmail.com : suma :
দৌলতপুর খলসী ইউনিয়ন পরিষদ - আমার দেশ প্রতিদিন
December 5, 2022, 2:59 pm
ব্রেকিং নিউজ:
রাবেয়া ক্লিনিকে রোগীকে ভুল অপারেশন করায় ডুমুরিয়া থানায় অভিযোগ, ভুক্তভোগীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে ডাক্তার হাসান লালমনিরহাটে বন্ধ রাস্তা চালুর দাবীতে গ্রামবাসীদের মানববন্ধন আজ নাটোরে পালিত হলো বিশ্ব মৃত্তিকা দিবস ডুমুরিয়ায় শিশু কন্যাকে যৌন হয়রানির অভিযোগে মন্টু মোল্যাকে আটক করেছে থানা পুলিশ ডুমুরিয়ার চুকনগরে এক সপ্তাহের ব্যাবধানে ৫টি দুঃসাহসিক চুরি সংঘটিত হয়েছে ফলে চুরি নিয়ে শঙ্কিত রয়েছে সাধারণ মানুষ গাবতলী নেপালতলী ইউপি চেয়ারম্যান বাবুর বিরুদ্ধে অনিয়ম-দূর্নীতির অভিযোগ বগুড়ায় জেলা যুবলীগের উদ্যোগে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল চুনারুঘাটে ৪ কোটি ৩২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ২ টি ব্রিজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন বিমান প্রতিমন্ত্রী-এড.মাহবুব আলী সাংবাদিক ফারুক হোসেনর মৃত্যুতে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব লালমনিরহাটের গভীর শোক প্রকাশ পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে কাপ্তাই সেনা জোনের উদ্যোগে গরিব ও দুস্থ্যদের মাঝে চিকিৎসা সেবা প্রদান

দৌলতপুর খলসী ইউনিয়ন পরিষদ

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, আগস্ট ২৬, ২০২২,
  • 70 Time View

ভিজিডি কার্ডের নামে ইউপি সদস্যর অবৈধ অর্থ আদায়ের

মুরাদ খান মানিকগঞ্জ থেকে ২৫ আগস্ট

মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার খলসী ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্যর বিরুদ্ধে ভিজিডির কার্ডের মাধ্যমে ১৫ হাজার টাকা দেয়ার নামে অর্থ আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগীদের কার্ডের ১৫ হাজার টাকা দেই দিচ্ছি বলে তালবাহানা করে ঘুরাচ্ছে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য লিটন মিয়া।
জানা যায়, দৌলতপুর উপজেলার খলসী ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নং ওয়াডের ইউপি সদস্য মশিউর রহমান খান লিটন ভিজিডির কার্ডের মাধ্যমে ১৫ হাজার টাকা পাইয়ে দেয়ার নাম করে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ২০ জন অসহায় দরিদ্র ভূমিহীন পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে মাথাপিছু ৫ হাজার দাবী করে নগদ ৩ হাজার টাকা নেন। এমনকি প্রত্যেকের কাছ থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র গ্রহণ করেন।
খালেদা নামের এক ভুক্তভোগী বলেন,আমরা অসহায় বলেই সরকারি অনুদান নেই। আমি প্রতিমাসে ভিজিডি কার্ডের চাল পাচ্ছি। হঠাৎ একদিন আমাগো নতুন মেম্বার আমাকে বললো ফুফু তোমাগো ১৫ হাজার টাকা দেয়া হবে। আর ১৫ হাজার টাকা পাইতে হলে ৫ হাজার টাকা খরচ লাগবে। ১৫ হাজার টাকা পাওয়ার আশায় আমি লিটন মেম্বারাকে ৩ হাজার টাকা দেই। এখন জিজ্ঞেস করলে মেম্বার বলে সরকারি টাকা আসতে একটু সময় লাগবে। তোমাগো ধৈর্য ধরতে হবে।
আরেক ভুক্তভোগী আনোয়ার বেগম বলেন, আমি কিছু বলতে পারবো না। আমার ডর করে। কি বলুম হিতে আমাগো আবার ক্ষতি হয়ে যাবে। আমরা গরীব মানুষ ৩ হাজার টাকা দিয়ে এখনও ১৫ হাজার টাকা পাই নাই। আপনাগো কাছে বললে যদি মেম্বার আমগো টাকা না দেয় তাহলে আমরা আরো বিপদে পড়বো।
ইউপি সদস্য মশিউর রহমান খান লিটনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি নতুন মেম্বার হয়েছি। ভিজিডি কার্ড আগের মেম্বার দিয়েছে। আমি কারো কাছ থেকে কোন টাকা পয়সা নেই নাই।
খলসী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জিয়াউর রহমান বলেন, এবিষয় আমি জানি না। মেম্বার তো এভাবে কারো নিকট থেকে টাকা নিতে বা দাবী ও করতে পারে না। মেম্বার সাথে কথা বলে আপনাকে জানাবো ভাই৷
এবিষয়ে দৌলতপুর উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মুরছালিমা বেগম বলেন, আমরা শুনেছি উপকার ভোগীদের ১৫ হাজার করে টাকা দেয়া হবে। তবে কবে আসবে এখনও ঠিক হয়নি। যদি কোন জনপ্রতিনিধি অসচ্ছল ব্যক্তিদের লোভ দেখিয়ে অবৈধভাবে অর্থ আদায় করে থাকে এটা শাস্তি যোগ্য অপরাধ। খোজ খবর নিয়ে দেখি যদি ঘটনা সত্য হয় তাহলে অবশ্য ইউপি সদস্য লিটন মিয়া বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ ব্যাপারে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইমরুল হাসান বলেন, নতুন করে কেউ ভিজিডি কার্ড পাবে না। যদি কেউ টাকা দিয়ে থাকে তাহলে সে লোক ভুল করেছে। ভুক্তভোগীদের লিখিত অভিযোগ পেলে অবশ্যই ইউপি সদস্যর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Copyright © All Right Reserved 2020 আমার দেশ প্রতিদিন
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )