1. admin@amardeshpbd.com : amardesh :
  2. sumarubelp@gmail.com : suma :
গর্ভবতি না হয়েও মাতৃত্বকালীন ভাতা - আমার দেশ প্রতিদিন
December 5, 2022, 3:18 pm
ব্রেকিং নিউজ:
রাবেয়া ক্লিনিকে রোগীকে ভুল অপারেশন করায় ডুমুরিয়া থানায় অভিযোগ, ভুক্তভোগীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে ডাক্তার হাসান লালমনিরহাটে বন্ধ রাস্তা চালুর দাবীতে গ্রামবাসীদের মানববন্ধন আজ নাটোরে পালিত হলো বিশ্ব মৃত্তিকা দিবস ডুমুরিয়ায় শিশু কন্যাকে যৌন হয়রানির অভিযোগে মন্টু মোল্যাকে আটক করেছে থানা পুলিশ ডুমুরিয়ার চুকনগরে এক সপ্তাহের ব্যাবধানে ৫টি দুঃসাহসিক চুরি সংঘটিত হয়েছে ফলে চুরি নিয়ে শঙ্কিত রয়েছে সাধারণ মানুষ গাবতলী নেপালতলী ইউপি চেয়ারম্যান বাবুর বিরুদ্ধে অনিয়ম-দূর্নীতির অভিযোগ বগুড়ায় জেলা যুবলীগের উদ্যোগে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল চুনারুঘাটে ৪ কোটি ৩২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ২ টি ব্রিজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন বিমান প্রতিমন্ত্রী-এড.মাহবুব আলী সাংবাদিক ফারুক হোসেনর মৃত্যুতে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব লালমনিরহাটের গভীর শোক প্রকাশ পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে কাপ্তাই সেনা জোনের উদ্যোগে গরিব ও দুস্থ্যদের মাঝে চিকিৎসা সেবা প্রদান

গর্ভবতি না হয়েও মাতৃত্বকালীন ভাতা

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, নভেম্বর ৭, ২০২০,
  • 100 Time View

শেখ ইমন,ঝিনাইদহ

গর্ভবতি না হয়েও নিয়মিত মাতৃত্বকালীন ভাতা উঠছে নার্গিস বেগমের। তবে তিনি এই টাকা পান না।
এলাকার মহিলা মেম্বর শাবানা খাতুন ভাতাভোগী নার্গিস বেগমের কাছ থেকে টাকা নিয়ে নেন।

এ ভাবে ২০১৮ সাল থেকে দুই বছর ধরে মাতৃত্বকালীন ভাতার টাকা তুলে খাচ্ছেন মহিলা মেম্বর।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নের কয়ারগাছি আবাসন প্রকল্পে বসবাসরত নার্গিস বেগম এক সন্তানের জননী। দুই বছরের মধ্যে তিনি সন্তান সম্ভবা হন নি। তার স্বামীর নাম গোলাম রহমান।
অভিযোগ উঠেছে, এ নিয়ে ঝিনাইদহ মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের কোন উচ্চ বাচ্য নেই। বরং তারা মাসের পর মাস ভাতা বাতিল না করে এই অতৈনিক কাজে সহায়তা করে যাচ্ছেন।

সন্ধান নিলে হয়তো নার্গিস বেগমের মতো অনেক নারী গর্ভবতি না হয়েও মাতৃত্বকালীন ভাতা তুলে নিচ্ছেন। তথ্য নিয়ে জানা গেছে, অনলাইনে আবেদন করার পর কোন তদন্ত করা হয়নি।

নার্গিস বেগম জানান, তিনি টাকা তুলে মহারাজপুর ইউনিয়নের ৮ নং সংরক্ষিত আসনের মহিলা মেম্বর সাবানা খাতুনের হাতে দেন। প্রতিবার টাকা উত্তোলনের সময় তিনি পান ৫০০ টাকা করে। বাকী টাকা মহিলা মেম্বর নিয়ে নেন।
মহারাজপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান খুরশিদ আলম জানিয়েছেন, নার্গিস বেগম গর্ভবতি ছিলেন, কিন্ত তার বাচ্চা নষ্ট হয়ে গেছে। তবে এ সংক্রান্ত কোন তথ্য প্রমান নার্গিস বেগম দেখাতে পারেনি। তবে মহিলা মেম্বর শাবানা খাতুনের বক্তব্য জানতে একাধিকবার তার মুঠোফোনে ফোন করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেন নি।

এ বিষয়ে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের তথ্য কর্মকর্তা খোন্দকার শরিফা আক্তার বলেন, গর্ভবতি না হয়ে কেও ভাতা তুলতে পারেন না। এটা অন্যায়। হয়তো গাফলতির কারণে এমনটা হতে পারে। তদন্ত করে তিনি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Copyright © All Right Reserved 2020 আমার দেশ প্রতিদিন
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )